Wed. May 18th, 2022

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি: নীলফামারীর সৈয়দপুর বিমানবন্দরে নিরাপত্তার দায়িত্ব থাকা ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটানিয়নের এক সদস্যকে মারপিট ও রক্তাক্ত জখম করে আহত ঘটনায় তিন যুবককে আটক করা হয়েছে। রোববার সৈয়দপুর বিমানবন্দর প্রবেশের প্রধান ফটকে ওই গালমন্দ ও মারপিটের ঘটনাটি ঘটেছে। আহত পুলিশ সদস্য সেলিমকে সৈয়দপুর হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় আটককৃতরা হচ্ছে শহরের হাতিখানার শরীফের ছেলে ওমর আলী (২৫) ও তাঁর হায়দার আলী (২২) এবং একই এলাকার মো. আলী হোসাইনের ছেলে ইজাজ আহমেদ ওরফে রফিক।
থানায় মামলার অভিযোগে বলা হয়, ঘটনার দিন রবিবার সকাল সোয়া ১০টার সৈয়দপুর বিমানবন্দর প্রবেশের প্রধান ফটকে ৮ আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের কনস্টেবল সেলিম, শহীদুল ও মনসুর নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করছিলেন। আর এ সময় শহরের হাতিখানা এলাকার ওমর আলী, তাঁর ভাই হায়দার আলী ও ইজাজ আহম্মেদ ওরফে রফিক নামের তিন যুবক একই মোটরসাইকেলের ( নম্বর: নীলফামারী-ল-১১-২৯৪৫) বসে দ্রæতগতিতে ও হেলমেট বিহীন অবস্থায় বিমানবন্দর প্রবেশের প্রধান ফটক দিয়ে বিমানবন্দরের ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করছিল। এ সময় সেখানে দায়িত্বরত পুলিশ কনস্টেবল সেলিম তাদের মোটরসাইকেলটি থামানোর জন্য সিগন্যাল দেন। কিন্তু মোটরসাইকেল আরোহী ওই তিন যুবক পুলিশের সিগন্যাল অমান্য করে বিমানবন্দরে প্রবেশের চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ কনস্টেবল সেলিম দৌঁড়ে বিমানবন্দর প্রবেশের প্রধান ফটক থেকে আনুমানিক ১৫ গজ ভেতরে গিয়ে মোটরসাইকেলটির সামনে দাঁড়ান। এতে তারা (যুকবরা) মোটরসাইকেল থামাতে বাধ্য হয়। এরপর মোটরসাইকেল আরোহী তিন যুবক মোটরসাইকেল থেকে নেমে পুলিশ কনস্টেবল সেলিমকে অকথ্য অহেতুক অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। এ সময় যুবকদের গালিগালাজের প্রতিবাদ জানালে যুবক ওমর আলী ক্ষিপ্ত হয়ে পুলিশ কনস্টেবল সেলিমের পরণে থাকা সরকারি পোষাকের কলার ধরে টানাহেঁচড়া করতে থাকে। এ সময় ওমরসহ অপর দুই যুবকও আর্মড পুলিশ সদস্য সেলিমের ওপর চড়াও হয়ে এলোপাাতড়ি কিল ঘুষি মারতে থাকে। এতে পুলিশ কনস্টেবল সেলিমের নাকের হাঁড় ভেঙ্গে যায় এবং তিনি গুরুতর রক্তাক্ত জখমপ্রাপ্ত হন। এ সময় তাঁর পরিহিত সরকারি পোষাকের সোল্ডার ও নেমপ্লেট ক্যাসার ছিঁড়ে পোষাকটিও ক্ষতিগ্রস্থ হয়। পরবর্তীতে সেখানে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্য শহীদুল, মনসুর ও আনসার সদস্য এলোপতি বর্মণ এগিয়ে গিয়ে পুলিশ কনস্টেবল সেলিমকে তিন যুবকের হাত থেকে রক্ষা করেন। এ সময় সেখানে কর্মরত অন্যান্য পুলিশ ও আনসার সদস্যদের সহযোগিতায় ঘটনাস্থল থেকে ওই তিন যুবকদের আটক করা হয়। পরবর্তীতে আটককৃতদের সৈয়দপুর থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় ৮ আমর্ড পুলিশ ব্যাটানিয়নের সহকারি উপ-পরিদর্শক (এএসআই) লায়েকুজ্জামান বাদী হয়ে উল্লিখিতদের তিন জনের নামে সৈয়দপুর থানায় একটি মামলা করেছেন।
মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসনাত খান জানান, গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতের সোপর্দ করে সাত দিনের রিমান্ডের জন্য আবেদন করা হয়েছে।

One thought on “সৈয়দপুর বিমানবন্দরে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের এক সদস্যকে মারপিট ঃ তিন যুবক আটক”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!