পরিবার নিয়ে দেখার মতো সিনেমা তৈরি করুন- প্রধানমন্ত্রী


ডেস্ক ।। ৪৪তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৯ দেয়ার আসর বসেছে রোববার। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে পূর্বঘোষিত বিভাগগুলোতে বিজয়ী তারকাদের হাতে পদক তুলে দিয়েছেন অনুষ্ঠানের সভাপতি তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান এবং তথ্যসচিব খাজা মিয়া। একইসঙ্গে এতে যোগ দেন চলচ্চিত্র ও সংস্কৃতি অঙ্গনের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।

পুরস্কার প্রদান শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি উপস্থিত থেকে এই পুরস্কার দিতে চেয়েছিলাম, কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে আমি একরকম বন্দি জীবনযাপন করছি। ভার্চুয়ালি যোগদান করেছি। ডিজিটাল বাংলাদেশ হওয়ার কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে। আমার দুঃখ থেকে গেলো যে নিজে উপস্থিত থেকে পুরস্কার দিতে পারলাম না। আমরা আশা করি করোনার হাত থেকে দেশ মুক্তি পাবে, আমরা আবারও এক হতে পারবো।’

সরকার প্রধান বলেন, ‘বাংলাদেশটাকে সমৃদ্ধ করার জন্য জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার পরপরই বিভিন্ন পদক্ষেপ নেন। এফডিসির উন্নয়ন করেন। বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছিলেন, কিন্তু সম্পন্ন করে যেতে পারেননি। ১৫ আগস্ট আমাদের জীবনটাকেই পালটে দিয়েছে। এরপর বাঙালির সংস্কৃতিটাই নষ্ট হতে বসেছিল। জাতীর পিতার অধরা কাজগুলো সম্পন্ন করাই আমাদের দায়িত্ব।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের এই শিল্প নষ্ট হয়ে যাক তা আমরা চাই না। সিনেমাগুলো সেভাবেই তৈরি করতে হবে যেন পরিবার নিয়ে দেখা যায়। শিশুদের জন্যও সিনেমা তৈরি করতে হবে যেন তারা সিনেমা দেখে শিক্ষা নিয়ে জীবনকে প্রস্তুত করতে পারে।’

শর্টলিংকঃ

About নিউজ ডেস্ক

View all posts by নিউজ ডেস্ক →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *