Wed. May 18th, 2022


স্টাফ রিপোর্টারঃ নীলফামারী সদর উপজেলার চড়াইখোলা ইউনিয়নে অতি দরিদ্রের জন্য কর্মসংস্থান (ইজিপিপি) শ্রমিকদের নিয়ে পত্রিকায় ভুল তথ্য প্রকাশিত হওয়ার প্রতিবাদের সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (২২ জানুয়ারী) দুপুরের চড়াইখোলা ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে পরিষদের হলরুমে সংবাদ সম্মেলন করেন চড়াইখোলা ইউনিয়ন পরিষদ নবাগত চেয়ারম্যান মাসুম রেজা।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘একটি স্বার্থান্বেষী মহল তাদের স্বার্থ রক্ষার জন্য আমার নামে নানা গুজব ছড়াচ্ছে। অতিদরিদ্রদের কর্মসংস্থান কর্মসুচির (ইজিপিপি) আওতায় যেসব শ্রমিক নিয়োগ করা হয়েছে তা অর্থের বিনিময়ে পুরাতন সকল শ্রমিকদের বাদ দিয়ে নতুনদের নিয়োগ দিয়েছি বলে নানা ধরনের কুৎসা রটাচ্ছে যা সত্যিই অনেক নিন্দনীয়। সাংবাদিকরা সমাজের দর্পন কিন্তু কতিপয় সাংবাদিক প্রকৃত ঘটনা না জেনেই ভুল তথ্য দিয়ে সংবাদ পরিবেশন করেছে। আমি চাই সাংবাদিকরা প্রকৃত তথ্য জানুক।’
সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শ্রমিক নিয়োগের প্রক্রিয়া সম্পর্কে তিনি বলেন, শ্রমিক নিয়োগের ব্যাপারে ইউএনও মহোদয়ের সাথে পরামর্শ করেছি। তিনি নতুন ও পুরাতনদের সমন্বয়ে শ্রমিক নিয়োগের পরামর্শ দেন। তিনি আরো বলেন, পুরাতন শ্রমিক ২০ শতাংশ ও নতুন শ্রমিক ৮০ শতাংশ রাখতে। সেখানে আমি পুরাতন শ্রমিক রেখেছি ৪০ শতাংশ ও নতুন শ্রমিক রেখেছি ৬০ শতাংশ। পুরাতন শ্রমিক যাদের বাদ দেয়া হয়েছে তাদের অধিকাংশই বৃদ্ধ যারা কাজ করতে অক্ষম। এছাড়া যাদের আগে নিয়োগ করা হয়েছিল তারা আর্থিকভাবে ছিল স্বচ্ছল। এবার যাদের নিয়োগ করা হয়েছে তারাই সবাই অসচ্ছল। এছাাড়া অতি দরিদ্রের জন্য কর্মসংস্থান (ইজিপিপি) সুবিধাভোগী যাচাই-বাছাই ও প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য ২১ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।
টাকার বিনিময়ে শ্রমিকদের নিয়োগের ব্যাপারে বলেন,‘পুরাতন শ্রমিক যারা বাদ পড়েছেন আমার প্রতিপক্ষরা তাদের হাতিয়ার বানিয়ে আমার নামে নানা অপপ্রচার চালাচ্ছে। তাদের কে ভুল বুঝিয়ে বিভ্রান্ত করে মিডিয়ার সামনে কথা বলতে বাধ্য করছে। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে স্বচ্ছতার সাথে এই কর্মসূচির শ্রমিক নিয়োগ করা হয়েছে। টাকার বিনিময়ে নিয়োগ দেওয়ার কথা যারা বলছে তারা টাকা লেনদেনের একটি প্রমান দেখাক। প্রমান দেখাতে পারলে প্রশাসন আমাকে যা শাস্তি দিবে তা মেনে নিতে আমি রাজি আছি।
সংবাদ সম্মেলনে চড়াইখোলা ইউনিয়ন পরিষদের সচিব মফিজুল ইসলাস, উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা ও ইজিপিপি’র প্রকল্পের ওই ইউনিয়নে নিয়োজিত ট্যাগ অফিসার নৃপেন্দ্রনাথ রায়, ইউনিয়নে ৯টি ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ও সংরক্ষিত আসনের মহিলা সদস্যরাসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, অতি দরিদ্রের জন্য কর্মসংস্থান (ইজিপিপি) প্রকল্পের আওতায় ৪০ দিনের কর্মসূচি হিসেবে ২৪৬ জন অসচ্ছল মানুষ কাজ করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!