Wed. May 18th, 2022


এসএপ্রিন্সঃ যথাযোগ্য মর্যাদায় সোমবার নীলফামারীতে ‘পুলিশ মেমোরিয়াল ডে’ পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে সকাল ১০টায় পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান বিপিএম, পিপিএম পুলিশ লাইন্সে কর্তব্যরত অবস্থায় জীবন উৎসর্গকারী পুলিশ সদস্যদের স্মরণে নির্মিত “পুলিশ স্মৃতিস্তম্ভে” পুষ্পস্তবক অর্পন করেন এবং গার্ড অব অনার প্রদান করেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন আবদুল্লাহ্ আল-ফারুক (কমান্ড্যান্ট, পুলিশ সুপার) ইন-সার্ভিস ট্রেনিং সেন্টার নীলফামারী, আক্তার হোসেন, অতিরিক্ত বিশেষ পুলিশ সুপার, (পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত) সিআইডি, নীলফামারী, আবুল বাশার মোহাম্মদ আতিকুর রহমান,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন), নীলফামারী, মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর), নীলফামারী, এ.এস. এম. মুক্তারুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর- সার্কেল), নীলফামারী, জয়ব্রত পাল, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার, ডোমার-সার্কেল, নীলফামারী ও সকল থানার অফিসার ইনচার্জসহ বিভিন্ন পদমর্যাদার অফিসার-ফোর্স এবং নিহত পুলিশ সদস্যদের পরিবারবর্গের সদস্যগণ।
এ সময় পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান বিপিএম, পিপিএম বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে পুলিশের যেমন অগ্রনী ভূমিকা ছিলো, তেমনি এই স্বাধীনতা রক্ষা করার জন্য এবং দেশের উন্নয়নের ধারাকে অনকে দূর এগিয়ে নেয়ার জন্য পুলিশের গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা রয়েছে।
তিনি বলেন, পুলিশের চোখের পাতা কখনো এক হয় না। পুলিশ সদস্যরা সারারাত জেগে থাকে দেশের সু-নাগরিকদের জন্য। করোনা সময়ে পুলিশ নিজের জীবনকে উৎসর্গ করে সামনে থেকে কাজ করেছে। ২০২০ সালে দেশে বিভিন্ন পদের ২০৮ জন পুলিশ সদস্য কর্তব্যরত অবস্থায় জীবন উৎসর্গ করেছেন। এরমধ্যে নীলফামারীতে ১ জন পুলিশ সদস্য জীবন উৎসর্গ করেছেন। এছাড়া পুলিশের সদস্যরা নিজের জীবনকে বাজি রেখে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারীদের লাশ দাফন করেছে। করোনা রোগীদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছে। পরে উৎসর্গকারী পুলিশ সদস্যদের আত্মার মাগফেরাত কামনা মিলাদ মাহফিল ও বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!