Wed. May 18th, 2022

স্টাফ রিপোর্টারঃ শনিবার সকাল ১০টার দিকে করোনা ভাইরাস আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে নীলফামারী শহরের মধ্য হাড়োয়া এলাকার গোল্ড টাইমিং ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানীতে। এ সময় কর্মরত নারী শ্রমিকরা সঙ্গা হারিয়ে লুটিয়ে পড়ে মেঝেতে। সহকর্মীরা তাদেরকে দ্রæত নিয়ে আসে নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালে। দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ২৮জন রোগী। এ প্রতিষ্ঠাণটি পরিচালনা করছে চীনের একটি কোম্পানী।
এ সময় হাসপাতালে এ ভাইরাসের খবর ছড়িয়ে পড়লে অনেক ভর্তি রোগী যে যার মতো দ্রæত পালিয়ে যায় হাসপাতাল থেকে। দৌড়ে পালাতে গিয়ে আহত হয় অনেকেই।
ওই ফ্যাক্টরীর লাইনম্যান লাকি আখতার বলেন, সকাল ৭টার দিকে শ্রমিকেরা এসে কাজে যোগ দেয়। তারা সকলেই যে যার মতো কাজ করছিল। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কর্তব্যরত শ্রমিকেরা হঠাৎ করে অসুস্থ্য হয়ে মেঝেতে লুটিয়ে পড়ে। তাদেরকে দ্রæত হাসপাতালে নিয়ে এসে ভর্তি করানো হয়।
ফ্যাক্টরীর জুনিয়র নির্বাহী আবু বক্কর বলেন, অসুস্থ্য নারী শ্রমিকদের চিকিৎসা চলছে হাসপাতালে। তাদের চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করবে কোম্পানী।
নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. আশিকুর রহমান বলেন, এটা এক ধরনের মনস্তাত্বিক রোগ। খুব দ্রæতই এটি একজনের থেকে আর একজনের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। তবে তাদের শরীরে করোনা ভাইরাসের কোন অস্তিত্ব নেই। এতে আতঙ্কিত হওয়ারও কিছু নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!